Wednesday, April 29, 2015

Payza একাউন্ট খুলুন

একাউন্ট ওপেন করবার পূর্বে কিছু পরামর্শ-
একাউন্ট ওপেন করবার পূর্ব কিছু নিয়ম নীতি আছে সেই গুলো একটু নোট করে নিন-
যেমন- ১। একাউন্টে আপনার যে নাম দিবেন তা ঠিক করে নিন।এখানে পক্সি হিসাবে কারোর নাম দিবেন না। বা ভূয়া একাউন্ট ওপেন করতে যাবেন না।কারন এটা কোন ভাওতাবাজী সাইট নয়। প্রতিটি কাজের এখানে ভেরিফিকেশন করা হয়। তাই সাবধান!
২। বিশেষ করে যাদের বয়স ১৮ বছর হয়েছেন বা ভোটার হিসাবে অন্তভূক্ত হয়েছেন তারাই এই একাউন্ট ওপেন করার উপযুক্ত। এখানে যে নাম দিবেন তা ভোটার  আই ডি  তে যেভাবে আছে ঠিক সেই নাম অনুসারে দিতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ এখানে মুল ব্যাপার নয়। বিশেষ করে Payza যখন টাকা উঠাতে যাবেন সেখানে ব্যাংক একাউন্ট Payza একাউন্টে কিন্তু একই নাম হতে হবে। সঠিক না হলে কোনভাবেই অর্থ উত্তলোন করতে পারবেন না। অবশ্য এখানেও ভেরিফিকেশনের ব্যাপার আছে। যারা ব্যাংকে এর মাধ্যমে টাকা উঠাতে যাবেন বিশেষ করে চেক নিয়ে সেখানে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আপনার ভোটার আই.ডি চাইবেন

৩। আমি নিজেও অবশ্য এমন অসুবিধার সম্মুখে পড়েছিলাম। আমি একটি সাইটে ইনকাম এর কাজ করতাম। সেখানের একাউন্টে আমার নাম সনদপত্রনুসারে লিখেছিলাম। যথন ব্যাংকে গেলাম ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আমাকে টাকা প্রেরন করলেন না। বললেন, আপনার ভোটার আই.ডি কার্ড সংশোধন করে নিয়ে আসুন। মূল ব্যাপরা হল- আমার ভোটার আইডি সার্টিফিকেটে নাম একই রকম ছিল। কিন্তু সেখানে নামের অক্ষরের হেরফের ছিল বলে এই সমস্যা হয়েছিল। পরবর্তীতে কষ্ট করে আমাকে পূনরায় একাউন্ট করতে হয়েছিল

৪। মুলত এমন কিছু সাইট আসে যেখানে কোনভাবেই নিজের নাম মেইল ঠিকানা পরিবর্তন করা যায়না। যেমন- Payza ।তাই এখানে সঠিকভাবে কাজটি করতে হয়

৫। Payza একাউন্ট করতে নতুন করে একটি মেইল একাউন্ট ওপেন করে নিয়ে কাজটি করলে ভাল হয়। আর এই মেইল একাউন্টির প্রমান হল আপনিই Payza একাউন্টের মালিক আপনিই অর্থ পাবেন। অবশ্য যাদের পূর্বে মেইল একাউন্ট আছে সেটি থেকে করলেও সমস্যা নাই
৬। প্রথমত Payza একাউন্টে রেজি এর সময় নাম, সেইল ঠিকানা সঠিক করে দিবেন। কেননা, ভূল হলে পরবর্তীতে কোনভাবেই পরিবর্তন করা যাবে না।অন্য ঠিকানা বা তথ্য গুলো পরিবর্তন করা যাবে
৭। রেজি এর ২য় পর্যায়ে একটি পিন নম্বর দিতে বলবে। এখানে আপনার পচ্ছন্দনীয় / সংখ্যার পিন নং দিন। এখানে আপনি আপনার পরীক্ষার রেজি বা রোল নং হিসাবে দিতে পারেন। আমি কিন্তু আমার বিশ্বৰ রোল নং ব্যবহার করেছি যাতে মনে থাকে। তাছাড়া পিন নম্বরটি লেখা রাখা ভাল। আপনি যদি পিন নম্বর ভুলে যান তাহলে কোনভাবেই নতুন পিন নিতে বা পরিবর্তন করতে পারবেন না। আবার Payza থেকে কোন সমাধান পাবেন না। তাই এখানে বিফলে গেলে আরেকটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে
৮। রেজিঃ শেষ পর্যায়ে ক্যাপচা কোড পরিবর্তন করতে হয় এটি অনেক ঝামেলার কাজ। ক্যাপচা সঠিক পূরন না হলে একাউন্ট তৈরি হবে না। আসলে Payza ক্যাপচা বুঝতে অনেক অসুবিধা সৃষ্টি করে। এখানে পরামর্শ হল- আপনি যে ক্যাপচাটি বুঝতে পারছেন সেটি দিবেন

কিভাবে Payza অ্যাকাউন্ট খুলবেন?

প্রথমে নিচের ব্যানার ক্লিক করুন 








Payza এর ওয়েবসাইট যাওয়ার জন্য এরপর নিচের মত পেজ আসবে, উপরে দেখবেন Sign Up লেখা আছে, সেখানে ক্লিক করুন নিচে স্ক্রীন শট দিলাম


Sign Up ক্লিক করার পর নিচের মত পেজ আসবে, সেখান থেকে Personal ক্লিক করুন


এরপর যে পেজ আসবে সেখানে আপনার নাম, -মেইল, পাসওয়ার্ড দিলে Get Started ক্লিক করুন, নিচে স্ক্রীন শট দেখেনপাসওয়ার্ড প্রথম দুইটা বোড় আখর,পরে সব ছোট ও নাম্বার দিবেন া যেমন NGsaaa199554



এরপর যে পেজ আসবে সেখানে আপনার
Region- এখানে অঞ্চল উল্লেখ করতে হবে এখানে আপনি ASIA দিন বা অন্য কিছু দিতে পারেন
Address-1 আপনার  ঠিকানা দিন। এখানে আপনার বাংক একাউন্টটে যে ঠিকানা আছে সেটি দিবেন।
City আপনার শহরের নাম
Postal Code- নিজ এরিয়ার পোষ্টাল কোড দিন যেমন-৬১০০
Home Phone- এখানে আপনার বর্তমানে ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরটি দিন মনে রাখবেন পরবর্তীতে আপনার একাউন্ট Verification করতে হলে এই নম্বরটি সচল থাকতে হবে
Occupation- এখানে Student হিসাবে সিলেক্ট করুন
Date of Birth- এখানে আপনার জন্মতারিখের তথ্যগুলি দিন যেমন- ১০/১০/১৯৯০
Transaction PIN- নিদিষ্ট কোন সংখ্যার নম্বর দিন যেমন- ৯০৭৬২০
Re enter Transaction PIN- একই নম্বর দিতে হবে
Password recovery- এই অপশন থেকে একটি প্রশ্ন সিলেক্ট করুন
Answer- এখানে তার উত্তর লিখুন
Third party Information- Yes/NO এখানে NO সিলেক্ট করে রাখাই ভাল। আমি একাউন্ট ওপেন করার সময় NO সিলেক্ট করেছিলাম

তো সব তথ্য সাবমিট করলে তারা আপনার মেইল একটি ভেরিফিকেশন মেইল পাঠাবে। এজন্য আপনাকে মেইল অ্যাকাউন্ট যেতে হবে। যেয়ে দেখবে Payza থেকে একটি মেইল পাবেন, সেখানে যে লিঙ্ক দেয়া থাকবে সেটা ক্লিক করলেই আপনার অ্যাকাউন্ট সফলভাবে খোলা হয়ে যাবে

অ্যাকাউন্ট খোলা হয়ে গেলে অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করে নিতে হয়, আপনি অনলাইনে কাজ করে টাকা Payza তে গ্রহন করতে পারবেন, কিন্তু ভেরফাই না করলে সেটা উত্তলন করতে পারবেন না, ভেরিফাই করা থাকলে টাকা বিভিন্নভাবে উঠাতে পারবেন যেমনঃ ফ্লেক্সিলোড, ব্যাংক এর মাধ্যমে, মাস্টারকার্ডের মাধ্যমে, অথবা চেকের মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে হলে আপনার National ID Card, Bank Statement থাকতে হবে, Bank Statement মানে আপনি ব্যাংক কত টাকা জমা দিয়েছেন, কত উঠিয়েছেন সেটার একটা পেপার তো দেখুন কিভাবে অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করতে হবে। দেকতে এখানে ক্লিক করুন


ফেসবুকে আমি Nafi Nazmul

1 comment:

Zakeer Ratul said...

Payza Accnt khulechi.Thanks a lot.I m very much grateful 2 u.